31 C
Dhaka
Sunday, July 21, 2024

অবশেষে মুখ খুললেন মতিউরের স্ত্রী লাকী

‘ঢাকার বড় বড় সাংবাদিকসহ নরসিংদী ও রায়পুরার সাংবাদিকদের কিনেই রায়পুরায় এসেছি, সব থেমে যাবে’- এমন কথা বলেননি বলে দাবি করেছেন ছাগলকাণ্ডে ফেঁসে যাওয়া এনবিআরের সদ্য সাবেক কর্মকর্তা মতিউর রহমানের প্রথম স্ত্রী ও নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লায়লা কানিজ লাকী।

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) সন্ধ্যায় রায়পুরা উপজেলা পরিষদে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান উপজেলা চেয়ারম্যান লায়লা কানিজ লাকী।

তিনি বলেন, গত ২৭ জুন বৃহস্পতিবার আমি অফিসে এসেছিলাম এবং আমার অফিসের যেসব কাজকর্ম ছিল, সেসব কিছু শেষ করে আমি যথারীতি কারও সঙ্গে কোনো কথা না বলে পরিষদ থেকে সোজা আমার নিজ গাড়িতে করে আমি আমার অফিস ত্যাগ করি। কিন্তু সেদিন কে বা কারা সাংবাদিক ভাইদের একটা ভুল তথ্য দিয়েছেন যে, ‘আমি ঢাকার সব বড় বড় সাংবাদিকদের ম্যানেজ করে এখানে এসেছি।’ এটা আসলে সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা। আমি এ রকম কথা বলিনি। তাই যারা মিডিয়াকর্মী ও সাংবাদিকদেরকে এ রকম ভুল তথ্য দিয়েছেন তাদের কাছ থেকে আপনারা সত্য তথ্য নিয়ে উপস্থাপন করবেন।

আরো পড়ুন  কুবিতে ছাত্রলীগ কর্মীদের পদত্যাগের হিড়িক

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক নেতা বলছেন, পদ-পদবি আর রাজনৈতিক ক্যারিয়ারসহ অস্তিত্ব বাঁচানোর জন্য ছাগলকাণ্ডের বিতর্কিত জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের কর্মকর্তা মতিউর রহমানের প্রথম স্ত্রী লায়লা কানিজ লাকী এসব কথা বলছেন। তারা বলছেন, কবরস্থান ও সাধারণ মানুষের জায়গা দখল করে নরসিংদীতে পার্ক ও বাড়ি গড়ে তুলেছেন লাকী। ভুক্তভোগীরা ইতোমধ্যেই গণমাধ্যমে বক্তব্য দিয়েছেন। মূলত সামনে রায়পুরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। সেখানে পুনরায় রায়পুরা উপজেলা চেয়ারম্যানের পদ বাগিয়ে নেয়াসহ তার স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি বাঁচাতে এই নাটক মঞ্চায়িত করেছেন। কারণ তিনি এর আগেও সাংবাদিক ও আইনজীবীদের নিয়ে বাজে মন্তব্য করেছেন। পরে আবার দুঃখ প্রকাশও করেছেন। যা ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

আরো পড়ুন  ‘আমি রাজাকার’ স্লোগানধারীদের শেষ দেখিয়ে ছাড়বে ছাত্রলীগ: সাদ্দাম হোসেন
সর্বশেষ সংবাদ