29 C
Dhaka
Friday, July 19, 2024

পাশাপাশি বাড়িতে বিয়ে ও মিলাদ, অতঃপর…

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বিয়েবাড়িতে উচ্চশব্দে গান বাজাতে নিষেধ করা নিয়ে কনেসহ সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার (২১ জুন) বিকেলে উপজেলার বড়খাতা ইউনিয়নের রমনীগঞ্জ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রমনীগঞ্জ এলাকায় আব্দুর রহমানের মেয়ে রুমানা আক্তার লিমার বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা চলছিল নিজ বাড়িতে। অনুষ্ঠানে উচ্চশব্দে গান বাজানো হচ্ছিল। একই সময় পাশের বাড়ির আমির আলীর বাড়িতে চলছিল মিলাদ মাহফিল। উচ্চশব্দে গান বাজানোয় মিলাদে বিঘ্ন ঘটে। এ কারণে সাময়িক সময়ের জন্য বিয়ে বাড়িতে বাজানো গানের সাউন্ড কমাতে বলা হয়। কিন্তু বিয়ে বাড়ির লোকজন সাউন্ড না কমিয়ে উল্টো বাড়িয়ে দিলে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে বিয়ের অনুষ্ঠানের কনেসহ দু’পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

আরো পড়ুন  ঘূর্ণিঝড় রিমালে প্লাবিত সুন্দরবন, ৩৯টি মৃত হরিণ উদ্ধার

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে আহতদের উদ্ধার করে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

আহতরা হলেন- রমনীগঞ্জ এলাকার আব্দুর রহমান (৪৫), স্ত্রী সাহিনা আক্তার সাইনা (৪০), কনে রুমানা আক্তার লিমা (১৯), সাকিল (২২), হালিমা বেগম এবং অপরপক্ষে একই এলাকার আমির আলী (৫৫), রুহুল আমিন (২০), সাইফুল ইসলাম (১৪) ও নজরুল ইসলাম।

আরো পড়ুন  ‘আমারে দেখিবার আইসো শেষ জানাজার আগে’

আব্দুর রহমান বলেন, বাড়িতে মেয়ের বিয়ে উপলক্ষে বড় ছেলে সাকিল গান বাজাচ্ছিল। এ অবস্থায় আমির আলীর লোকজন এসে আমার ছেলেকে মারধর করে। আমার মেয়ের বিয়েবাড়ির প্যান্ডেল ভাঙচুর করে, খাবার-দাবার সব ফেলে দেয়। মেয়েসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন।

এ বিষয়ে আমির আলী বলেন, মিলাদে বিঘ্ন ঘটে উচ্চশব্দের সাউন্ড বক্সের গান-বাজনা। তাই প্রথম দিকে শব্দ কমিয়ে দিতে বলা হলে তারা উল্টো বাড়িয়ে দেন এবং গালমন্দ করেন। এনিয়ে তারাই আমাদের ওপর হামলা চালিয়ে পাঁচজনকে জখম করেছেন।

আরো পড়ুন  বৃদ্ধা মাকে বেধড়ক পেটাল ছেলে ও তার বউ

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, খবর পাওয়া মাত্র অফিসার পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত কোনো পক্ষই লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি।

সর্বশেষ সংবাদ