26 C
Dhaka
Wednesday, June 19, 2024

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে চাচার ছুরিকাঘাতে ভাতিজির মৃত্যু

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে চাচার হাতে থাকা ধারালো ছুরির আঘাতে পাপিয়া বেগম (৪৫) নামের এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। ঘটনায় অভিযুক্ত দুলা মিয়া সম্পর্কে নিহতের চাচা। এ ঘটনায় পুলিশ পারভিন বেগম নামে একজনকে আটক করলেও পলাতক অভিযুক্ত দুলা মিয়া ও তার ছেলে রাব্বি মিয়া। শনিবার (১৮ মে) সকাল ৮টার দিকে পলাশবাড়ী উপজেলার মনোহরপুর ইউনিয়নের বিরামের ভিটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, দুলা মিয়া, পাপুল মিয়া ও চান্দু মিয়ার সঙ্গে মৃত নুরুল ইসলাম মাষ্টারের মেয়ে পাপিয়া বেগমসহ তার পরিবারের লোকজনের পারিবারিক সম্পত্তি ও বসতবাড়ির জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। শনিবার সকালে দুলা মিয়া তার ছেলে রাব্বিসহ কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে বিরোধপূর্ণ জমিতে গাছ রোপন করতে যায়। এসময় ভাতিজি পাপিয়া বেগম ও তার পরিবারের লোকজন তাদের বাধা দেয়। এতে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দুলা মিয়া তার হাতে থাকা ছুরি দিয়ে ভাতিজি পাপিয়ার গলায় আঘাত করে। এতে পাপিয়া গুরুতর জখম হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এসময় স্বজনরা তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পথে পাপিয়ার মৃত্যু হয়।

আরো পড়ুন  বিনা চিকিৎসায় স্ত্রীর মৃত্যু, মেয়েও অসুস্থ; পেনশন মিলবে কবে?

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন মনোহরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল ওহাব প্রধান রিপন। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে দুলা মিয়ার সাথে নিহত পাপিয়া বেগমের পরিবারের ৩ শতাংশ জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো। এর আগেও বিষয়টি নিয়ে আপোষ-মিমাংসার জন্য উভয়কে তাদের কাগজপত্র ঠিক করতে বলেছিলাম। কিন্তু তার আগেই জমি দখলের চেষ্টা করে দুলা মিয়া।

আরো পড়ুন  পুকুরে ডুবে প্রাণ গেল ৩ শিশুর

উল্লেখ্য, ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছে পুলিশ। এ বিষয়ে সহকারী পুলিশ সুপার (সি-সার্কেল) উদয় কুমার বলেন, ঘটনায় জড়িত অভিযোগে একজনকে আটক করা হয়েছে। অভিযুক্ত দুলা মিয়াসহ জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। নিহতের মরদেহের ময়নাতদন্তের পর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

আরো পড়ুন  মায়ের পা ধুয়ে সম্মান জানাল শিক্ষার্থীরা
সর্বশেষ সংবাদ