30 C
Dhaka
Thursday, July 18, 2024

ভাটারায় বিস্ফোরণ একে একে চলে গেলেন পরিবারের ৪ সদস্য

রাজধানীর ভাটারা থানাধীন বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি বাসার রান্নাঘরে বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ আরও একজন মারা গেছেন। তার নাম রকসি আক্তারও (২০)। এর মাধ্যমে বিস্ফোরণের ঘটনায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরিবারের চারজনই মারা গেলেন। রোববার (১৬ জুন) ভোর ৫টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রকসি।

আরো পড়ুন  ‘সম্পর্ক শেষ হয়েছে বলে দলবল নিয়ে ধর্ষণ করবে, কল্পনাও করিনি’

হাসপাতালের আবাসিক সার্জন ডা. তরিকুল ইসলাম বলেন, ভাটারা থেকে দগ্ধ অবস্থায় নারী–শিশুসহ একই পরিবারের চারজন আমাদের এখানে এসেছিল। আজ ভোরের দিকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রকসি আক্তার। তার শরীরের ৫৫ শতাংশ দগ্ধ ছিল।

তরিকুল ইসলাম বলেন, এই ঘটনায় গত বুধবার শিশু আয়ান, বৃহস্পতিবার ছোট মেয়ে ফুতু আক্তার ও শনিবার দুপুরে মারা যান বৃদ্ধ আব্দুল মান্নান।

আরো পড়ুন  মরদেহের পাশে চিরকুট, ‘নিজ হাতে ধর্ষককে মেরে শাস্তি দিলাম’

প্রসঙ্গত, গত সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার এভারকেয়ার হাসপাতালের পাশের একটি ভবনের নিচতলার রান্নাঘরে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এতে একই পরিবারের নারী ও শিশুসহ চারজন দগ্ধ হয়। পরে তাদের দগ্ধ অবস্থায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি করা হয়।

সর্বশেষ সংবাদ