30 C
Dhaka
Friday, July 19, 2024

স্ত্রী-ও থামাতে ব্যর্থ, ভক্তের দিকে তেড়ে গেলেন রউফ (ভিডিও)

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব শেষ হয়েছে আজ (মঙ্গলবার), আগামীকাল থেকে শুরু হবে সুপার এইট পর্ব। যদিও সেখানে নেই পাকিস্তান, গ্রুপ পর্বে দুই ম্যাচ হেরে তারা বিদায় নিশ্চিত করেছে। ইতোমধ্যে পাকিস্তান দলের বেশিরভাগ ক্রিকেটারই বিশ্বকাপ পাট চুকিয়ে ফিরে গেছেন নিজ দেশে। যদিও বাবর আজমসহ বেশ কয়েকজন আরও কিছুদিন যুক্তরাষ্ট্রে থাকার কথা রয়েছে। এরই মাঝে ঘটেছে অনাকাঙ্ক্ষিত এক ঘটনা, কোনো একটি বিষয় নিয়ে এক ভক্তের ওপর চড়াও হন পাক পেসার হারিস রউফ।

ওই ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। যেখানে দেখা যায়, স্ত্রী মুজনা মাসুদ মালিকের সঙ্গে ফুটপাত ধরে হাঁটছিলেন হারিস। সেখান থেকে কিছুটা দূর দিয়ে যাচ্ছিলেন কয়েকজন ক্রিকেট সমর্থক। হঠাৎই হারিস দাঁড়িয়ে পড়ে কিছুটা দূরে থাকা এক ভক্তের সঙ্গে কিছু একটা নিয়ে কথা বলতে থাকেন। একপর্যায়ে মারমুখী হয়ে ওই ভক্তের দিকে এগিয়ে যান এই পাকিস্তানি পেসার।

আরো পড়ুন  যে সমীকরণে এখনও সেমিতে যেতে পারে বাংলাদেশ

এ সময় স্ত্রী মুজনা থামানোর চেষ্টা করলেও রউফ থামেননি। তিনি স্ত্রীর হাত ছাড়িয়ে মারমুখী হয়ে ওঠে এগোতে থাকেন ওই ভক্তের দিকে। পরে আশপাশে থাকা কয়েকজন ব্যক্তি হারিসকে থামাতে চেষ্টা চালান। ক্ষণিক পরই শান্ত হন হারিস। দু’পক্ষের মধ্যে কি নিয়ে ঝামেলা হয়েছিল জানা যায়নি, ভিডিওতে তাদের কথাও ছিল অস্পষ্ট। ওই ঘটনার পর উভয়ই ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

ওই ভিডিও শেয়ার দিয়ে এক ভক্ত লিখেছেন, ‘সমর্থকদের উচিৎ আচরণ ঠিক রাখা, বিশেষ করে যখন ক্রিকেটাররা পরিবারের সঙ্গে থাকেন। তাদেরও ব্যক্তিগত জীবন আছে। বিরক্ত কিংবা উসকানিমূলক মন্তব্য করা ঠিক নয়, বিরক্তিকরণ আচরণ। হারিসেরও এভাবে রেগে যাওয়া উচিৎ হয়নি।’ তবে কয়েকজন নেটিজেনের দাবি– ওই সময় সমর্থককে উদ্দেশ্য করে হারিস বলেন, ‘তুই ইন্ডিয়ান, তুই ইন্ডিয়ান।’ তার উত্তরে সেই ভক্ত জানান, তিনি পাকিস্তানি। তখন ফের রেগে যান হারিস। তিনি বলতে থাকেন, ‘তোমার বাবা-মা তোমাকে কীভাবে মানুষ করেছে? কোনো শিক্ষা দেয়নি?’

আরো পড়ুন  নেইমারকে নিজের মেয়ের বাবা দাবি করলেন এই মডেল

এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দিয়ে বেশ কয়েক মাসের ইনজুরি কাটিয়ে মাঠে ফেরেন হারিস। মাঠের পারফরম্যান্সও তার ভালোই ছিল। চার ম্যাচে উইকেট নিয়েছেন সাতটি। কিন্তু দলীয় ব্যর্থতায় পাক বোলারদের সেই ফর্ম আর কাজে আসেনি। গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় হয়ে গেছে বাবর-হারিসদের। এরপর থেকে পাকিস্তান দলে চরম অশান্তির খবর পাওয়া যাচ্ছে। সাবেক ক্রিকেটারদের কেউ কেউ তো বিশ্বকাপ খেলা বেশিরভাগ ক্রিকেটারকে বাদ দেওয়ার দাবি তুলেছেন।

আরো পড়ুন  বিয়ে করলেন বিশ্বকাপ মাতানো রিশাদ, পাত্রী কে?

সংবাদমাধ্যমের খবর, বাবর আজম দেশে ফিরলেই তাকে ডেকে পাঠাতে পারে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। তাকে অধিনায়কত্বে বহাল রাখা নিয়েও রয়েছে সংশয়। বিশ্বকাপ দিয়ে পাকিস্তানের প্রধান কোচের দায়িত্ব নেওয়া গ্যারি কারস্টেনও সমালোচনা করেছেন শিষ্যদের। তার মতে– পাকিস্তান দলে কোনো ঐক্য নেই। সবাই একে অপরের থেকে আলাদা। এর আগে অনেক দলের সঙ্গে কাজ করলেও এখানে নাকি ভিন্ন অভিজ্ঞতা হয়েছে তার।

সর্বশেষ সংবাদ