27 C
Dhaka
Saturday, July 13, 2024

জামিনে কারামুক্ত হলেন সেই পাপিয়া

কুমিল্লায় কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে কারামুক্ত হয়েছেন যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়া। সোমবার (২৪ জুন) সন্ধ্যায় কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে বের হন তিনি।

কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে পাপিয়া জামিনে কারামুক্ত হন। এর আগে দুপুরে তার জামিনের কাগজপত্র কারাগারে এলে তা যাচাই–বাছাই করে তাকে কারামুক্ত করা হয়।

আরো পড়ুন  বদলির পর আসবাবপত্র নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ ওসির বিরুদ্ধে

তিনি আরও জানান, পাপিয়ার বিরুদ্ধে মোট ছয়টি মামলা ছিল। এর মধ্যে পাঁচটি মামলায় তিনি আগেই জামিন পেয়েছিলেন। সোমবার দুপুরে ষষ্ঠ মামলায় উচ্চ আদালত থেকে জামিনের কাগজপত্র কারাগারে পৌঁছায়। পাপিয়ার বিরুদ্ধে ছয়টি মামলা থাকলেও সকল মামলায় জামিন থাকায় তাকে সন্ধ্যা ছয়টার দিকে কারামুক্ত করা হয়।

এর আগে কাশিমপুর কারাগারে ছিলেন পাপিয়া। সেখানে এক নারী বন্দীর ওপর নির্যাতনের অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে। এরপরই ২০২৩ সালে ৩ জুলাই তাকে গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় মহিলা কারাগার থেকে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তর করা হয়।

আরো পড়ুন  বিয়ের দাবিতে ইমনের বাড়িতে কলেজছাত্রীর অনশন

প্রসঙ্গত, রাজধানী ঢাকার পাঁচ তারকা হোটেলে বিলাসবহুল কক্ষ ভাড়া নিয়ে অনৈতিক কর্মকাণ্ড চালাতেন পাপিয়া। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানের বিষয়ে টের পেয়ে বিদেশে পালিয়ে যাওয়ার সময় ২০২০ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি বিমানবন্দর থেকে পাপিয়া ও তার স্বামী মফিজুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। এরপর পাপিয়াকে নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়। ওই বছরই অস্ত্র মামলায় পাপিয়া ও তার স্বামীর ২০ বছরের কারাদণ্ড হয়। এখনো তাদের বিরুদ্ধে কয়েকটি মামলার বিচার চলছে।

আরো পড়ুন  নারায়ণগঞ্জে দুই প্রকৌশলীর ঘুষ নেয়ার ভিডিও ভাইরাল
সর্বশেষ সংবাদ