31 C
Dhaka
Wednesday, July 17, 2024

অধ্যক্ষের ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠানে কর্মচারীদের বাধ্যতামূলক ফি ৫০০ টাকা!

সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. মোহসীন কবীরের ছেলের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে কলেজটির কর্মচারীদের জন্য বাধ্যতামূলক ৫০০ টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। এমন খবর প্রকাশের পর বিষয়টি নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে কলেজটির অফিসার্স কাউন্সিল।

শুক্রবার (৫ জুলাই) কলেজটির অফিসার্স কাউন্সিলের সম্পাদক অধ্যপক মো. মোতালিব হোসেন স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে সংবাদের প্রতিবাদ জানানো হয়।

বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, বৃহস্পতিবার বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকা ও বিভিন্ন

ফেসবুক গ্রুপে ‌‘অধ্যক্ষের ছেলের বিয়ে, বাধ্যতামূলক উপহার ৫০০ টাকা চেয়ে নোটিশ’

আরো পড়ুন  ঢাবিতে ডাস্টবিনে মিলল নবজাতকের মরদেহ

শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি অত্র কলেজের অফিসার্স কাউন্সিলের দৃষ্টিগোচর হয় ।

প্রকাশিত সংবাদটি সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও মানহানিকর। অত্র কলেজের অধ্যক্ষ মহোদয়ের ছেলের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা উপলক্ষে আগামী ১২ জুলাই কলেজের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের অধ্যক্ষ মহোদয় নিমন্ত্রণপত্র ও মৌখিকভাবে নিমন্ত্রণ জানানোর পাশাপাশি কেউ যেন কোনোরূপ উপহার সামগ্রী নিয়ে অংশগ্রহণ না করে সে ব্যাপারেও মৌখিকভাবে অনুরোধ জানানো হয়। অনুষ্ঠানে কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা ব্যক্তিগতভাবে যার যার মতো করে অংশগ্রহণ করবে মর্মে প্রত্যাশা করা হয়। কিন্তু বৃহস্পতিবার বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত উল্লিখিত সংবাদের সাথে কলেজের প্রধান সহকারী

আরো পড়ুন  সাতসকালে সড়কে ঝরল ৫ প্রাণ, আহত ২৫

স্বাক্ষরিত একটি নোটিশও দৃষ্টিগোচর হয়। নোটিশে কলেজের কর্মচারীদের কাছ থেকে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের জন্য প্রত্যেককে বাধ্যতামূলক ৫০০ টাকা চাঁদা সংগ্রহের বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে যা সম্পর্কে অধ্যক্ষ কোনোভাবেই অবগত নন। যা অধ্যক্ষ ও প্রতিষ্ঠানের জন্য মানহানিকর বলে স্পষ্ট প্রতীয়মান হয়। কারণ কলেজের অফিসার্স কাউন্সিল বা কোনো পর্যায়েই সম্মিলিতভাবে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত বা চাঁদা প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি।

বিবৃতিতে আরও জানানো হয়, অধ্যক্ষেরে অগোচরে কর্মচারীদের বাধ্যতামূলকভাবে ৫০০ টাকা প্রদানের নোটিশটি প্রধান সহকারী জনাব মো: মামুনুর রশিদের ব্যক্তিগত উদ্যোগে নেয়া হয়।

আরো পড়ুন  ‘বর্তমানের কোর্টে বিচার চলে নোটে’ বিটিআরসিকে গানটি সরানোর নির্দেশ

তাই কলেজ অফিসার্স কাউন্সিল প্রধান সহকারী কর্তৃক স্বাক্ষরিত নোটিশ ও অধ্যক্ষকে জড়িয়ে প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করছে।

যা লেখা ছিল সে নোটিশে

‘আগামী ১২ জুলাই সন্ধ্যা ৭টায় নগরীর বেইলি রোডস্থ অফিসার্স ক্লাবে মাননীয় অধ্যক্ষ মহোদয়ের পুত্রের বিবাহোত্তর সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছে। ওই আয়োজনে আপনি নিমন্ত্রিত। এ উপলক্ষে সব কর্মচারীকে শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে বাধ্যতামূলকভাবে ৫০০ টাকা কলেজের ক্যাশ সরকার মো. আবুল হোসেনের নিকট আগামী ০৫ জুলাইয়ের মধ্যে জমাদানের জন্য অনুরোধ করা হলো।’

সর্বশেষ সংবাদ