32 C
Dhaka
Thursday, July 18, 2024

এডিসি কামরুল ও তার স্ত্রীর ১১ কোটি ৩৪ লাখ টাকার সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ

চট্টগ্রামে পুলিশের এক কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর নামে থাকা ১১ কোটি ৩৪ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ বেগম জেবুননেছা মঙ্গলবার (৯ জুলাই) এ আদেশ দেন।

ওই পুলিশ কর্মকর্তার নাম কামরুল হাসান। তিনি নগর পুলিশে অতিরিক্ত উপকমিশনার হিসেবে কর্মরত। কামরুল হাসান ১৯৮৯ সালে উপপরিদর্শক (এসআই) হিসেবে পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন। পরে পদোন্নতি পেয়ে এ পদে আসেন। তার স্ত্রীর নাম সায়মা বেগম।

আরো পড়ুন  আ.লীগের আনন্দ মিছিলে দু’পক্ষের সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ১৮

দুদক চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক এমরান হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, দুদক অনুসন্ধান করে পুলিশ কর্মকর্তা কামরুল হাসান ও তার স্ত্রীর নামে ১১ কোটি ৩৪ লাখ টাকার স্থাবর-অস্থাবর অবৈধ সম্পদের তথ্য পেয়েছে। গত মাসে দুদক প্রধান কার্যালয়ে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন দেয়া হয়েছে। এ অবস্থায় স্থাবর–অস্থাবর সম্পদ যাতে অভিযুক্ত ব্যক্তিরা হস্তান্তর করতে না পারেন, সে জন্য দুদকের পক্ষ থেকে সম্পত্তি ক্রোকের জন্য আদালতে আবেদন করা হয়। পরে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

আরো পড়ুন  ‘বর্তমানের কোর্টে বিচার চলে নোটে’ বিটিআরসিকে গানটি সরানোর নির্দেশ

তিনি আরও জানান, পুলিশ কর্মকর্তা কামরুল হাসানের নামে নগরের পাহাড়তলীতে বাড়ি ও খুলশী ডিআইজি অফিসের পাশে ২ হাজার ৫৭০ বর্গফুটের কোটি টাকা মূল্যের একটি ফ্ল্যাট রয়েছে। এ ছাড়া অনন্যা আবাসিক এলাকায় প্লট আছে। এ ছাড়া ঢাকার সাভারে সাভার সিটি সেন্টার ও সাভার সিটি টাওয়ার নামে দুটি মার্কেটে মালিকানা রয়েছে কামরুল হাসানের। এমনকি চট্টগ্রাম শহরে বাড়ি থাকলেও তা গোপন করে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) দেয়া অনন্যা আবাসিক এলাকা থেকে প্লট নেন কামরুল হাসান।

আরো পড়ুন  আলট্রাসনোগ্রাম কক্ষ থেকে বেরিয়ে স্বামীকে ঘটনা খুলে বলেন ওই নারী,এরপর...

তার স্ত্রী সায়মা বেগমের নামে রয়েছে চারটি নৌযান। দুদকের অনুসন্ধানে এ পর্যন্ত ১১ কোটি ৩৪ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদের তথ্য পাওয়া গেছে। কামরুল হাসান ও তার স্ত্রীর নামে আর কোনো সম্পদ আছে কি না, তা তদন্তে বেরিয়ে আসবে।

সর্বশেষ সংবাদ