29 C
Dhaka
Thursday, June 20, 2024

দরজা ভেঙে দাদি ও নাতিকে কুপিয়ে হত্যা

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে বসতঘরের দরজা ভেঙে দাদি ও নাতিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় কুপিয়ে আহত করা আরেক শিশুকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার গভীর রাতে উপজেলার বাকিলা ইউনিয়নের রাধাসার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, বকাউল বাড়ির প্রবাসী ইউসুফের ছেলে শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী আরাফাত (১২) ও তার দাদি হামিদা (৭০)। কুপিয়ে আহত করা শিশুটি হলো ইউসুফের মেয়ে শ্রীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী হালিমা (১৪) ।

আরো পড়ুন  আবাসিক হোটেল থেকে সাবেক বন কর্মকর্তার মরদেহ উদ্ধার

মঙ্গলবার (২৮ মে) সকালে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন চাঁদপুর জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম।

তিনি বলেন, কুয়েত প্রবাসী মো. ইউসুফের মা হালিমুন নেছা তার নাতি ও নাতনিকে নিয়ে আলাদা একটি ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাতের কোনো এক সময় দুর্বৃত্তরা তাদের বসতঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে এমন ঘটনা ঘটায় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আরো পড়ুন  মাত্র ৫০০ টাকার জন্য শিশুকে নদীতে ফেলে দিলো কিশোর

তিনি আরও বলেন, ওই দাদি ও নাতির মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে।

এ ঘটনার বিষয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য রবিউল আলম তরুণ বলেন, ‘প্রবাসী মো. ইউসুফের মা আলাদা একটি বসতঘরে থাকতেন। তাই দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া হওয়ায় ওই দুই শিশু মায়ের সঙ্গে তাদের বসতঘরে না থেকে রাতে দাদির সঙ্গে ঘুমাতে যায়।’

আরো পড়ুন  নিখোঁজের ২ দিন পর হাওরে মিলল শিক্ষিকার মরদেহ
সর্বশেষ সংবাদ