26 C
Dhaka
Wednesday, June 19, 2024

ব্যাংকের লকার থেকে গ্রাহকের ১৫০ ভরি সোনা গায়েব

চট্টগ্রামের চকবাজার শাখার ইসলামী ব্যাংকের লকার থেকে ১৫০ ভরি স্বর্ণালংকার গায়েব হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। গত বুধবার (২৯ মে) এ ঘটনা ঘটে। তবে বিষয়টি জানাজানি হয় গতকাল শনিবার। লকার থেকে গায়েব হওয়া সোনার দাম প্রায় ১ কোটি ৭৬ লাখ টাকা বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, লকার থেকে গায়েব হওয়া ১৫০ ভরি স্বর্ণালংকারের মধ্যে রয়েছে ৬০ ভরি ওজনের ৪০ পিস হাতের চুড়ি (বড় সাইজ), ২৫ ভরি ওজনের গলা ও কানের ৪ জোড়া সেট, ১০ ভরি ওজনের একটি গলার সেট, ২৮ ভরি ওজনের ৭টি গলার চেইন, ১৫ ভরি ওজনের ৪টি আংটি ও ১১ ভরি ওজনের ৩০ জোড়া কানের দুল।

আরো পড়ুন  কুরবানির পশুবাহী গাড়ি থেকে চাঁদা আদায়, কপাল পুড়ল পাঁচ পুলিশ সদস্যের

বিষয়টি নিশ্চিত করে চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওয়ালী উদ্দিন আকবর জানান, গত ২৯ মে ইসলামী ব্যাংক চকবাজার শাখায় এই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে দ্রুত ইসলামী ব্যাংকের ওই শাখায় যান তিনি। গায়েব হওয়া স্বর্ণালংকারের মালিক রোকেয়া বারী নামে এক নারী। ভুক্তভোগীকে থানায় মামলা করতে বলেছিলাম। কিন্তু পরে আসবেন বলে তিনি আজও থানায় আসেননি। রোকেয়া বারী নগরের চট্টেশরী এলাকার বাসিন্দা।

আরো পড়ুন  আনারের হাড়-মাংস আলাদা করা কসাই গ্রেপ্তার

লকার থেকে সোনা গায়েবের বিষয়টি পুলিশের কাছে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ স্বীকার করেছে বলে জানান ওসি ওয়ালী উদ্দিন আকবর।

ওসি জানান, ১৭ বছর ধরে ইসলামী ব্যাংক চকবাজার শাখার লকার ব্যবহার করে আসছিলেন ভুক্তভোগী নারী রোকেয়া বারী। গত (২৯ মে) দুপুরে ব্যাংকের লকার থেকে কিছু স্বর্ণালংকার আনতে যান তিনি। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা তাকে লকার রুমের দরজা খুলে দেন। এরপর তার জন্য বরাদ্দ রাখা লকারের কাছে গিয়ে সেটি খোলা দেখতে পান রোকেয়া। এ সময় লকারে মাত্র ১১ ভরি স্বর্ণালংকার অবশিষ্ট দেখতে পান রোকেয়া। এরপর দ্রুত ঘটনাটি জানালে ঘটনাস্থলে আসেন চকবাজার থানার ওসি ওয়ালী উদ্দিন আকবর।

আরো পড়ুন  জানাজা ছাড়াই কবর দিতেন মিল্টন সমাদ্দার

লকার থেকে ১৫০ ভরি স্বর্ণালংকার গায়েব হওয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ইসলামী ব্যাংক চকবাজার শাখার ব্যবস্থাপক শফিকুল মওলা মন্তব্য করতে রাজি হননি।

সর্বশেষ সংবাদ