29 C
Dhaka
Thursday, June 20, 2024

‘আমি বাচ্চা নিয়া পুষকুন্নিতে লাফ দিছি, আমার শাশুড়ি মারা গেছে’ (ভিডিও)

ভোলার দৌলতখানে বরফকলের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে সিদ্দিকা খাতুন নামে এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় শিশুসহ আরও অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। শনিবার (৮ জুন) সন্ধ্যার পর শহরের থানা রোডের স্লুইচ গেট এলাকার খোরশেদ আলম দরবেশের বরফকলে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সিদ্দিকা খাতুন দৌলতখান পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মৃত হাদিসের স্ত্রী। এ ছাড়া দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন একই এলাকার মফিজের দেড় বছরের মেয়ে ফাইজা, বেল্লালের মেয়ে হুমায়রাসহ আরও অন্তত ১৫ জন।

আরো পড়ুন  অটোরিকশার চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে এইচএসসি পরীক্ষার্থী নিহত

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানায়, সন্ধ্যা ৭টায় খোরশেদ আলম দরবেশের বরফকলে হঠাৎ বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয়। এতে ওই এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে স্থানীয়রা দ্রুত সেখানে ছুটে গিয়ে দেখতে পান বরফকলের ঘরের টিনের চালা এবং দেয়াল ফেটে ইটের টুকরো পাশের দোকান ও বসতবাড়ির ওপর ছিটকে পড়ে আছে।

এ ঘটনায় বরফকলের পাশের বাড়ির সিদ্দিকা খাতুন ছাড়াও ফাইজা ও হুমায়রাসহ অন্তত ১৫ জন আহত হলে সবাইকে দৌলতখান হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের ভোলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। একপর্যায়ে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃদ্ধা সিদ্দিকা খাতুনের মৃত্যু হয়।

আরো পড়ুন  পাস করে মিষ্টি নিলেন নানার বাড়ি, ফেরার পথে প্রাণ কেড়ে নিল ট্রাক

বৃদ্ধা সিদ্দিকা খাতুনের ছেলের স্ত্রী এ ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন। তিনি বলেন, মাগরিবের সময় সিলিন্ডারে আগুন ধরছে। তখন আমরা ধোয়ার কারণে সামনে আগাতে পারি নাই। তখন আমরা বাড়ির পেছনে পুষকুন্নি আছে, ওখানে ঝাপ দিছি। আমার এক বাচ্চা হাঁটতে পারে না। আমি ওরে নিয়া ওপারে এসে উঠছি। এরপর আর হেগেরে (অন্য লোকদের) পাই না। পরে কে কেমনে ওগেরে বের করছে বলতে পারি না।

আরো পড়ুন  জিপিএ-৫ না পাওয়ায় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

তিনি বলেন, এরপর আমার বাচ্চাসহ আমার শাশুড়িকে ভোলা পাঠাই দিছি। আমার শাশুড়ি মারা গেছে, আর আমার ছেলে সুস্থ আছে। আর ছয়জন দৌলদিয়া হাসপাতালে ভর্তি।

সর্বশেষ সংবাদ