35 C
Dhaka
Thursday, July 18, 2024

ছেলে না হওয়ায় বাবার নৃশংসতার বলি যমজ মেয়ে

ভারতের দিল্লির এক ব্যক্তিকে নিজের দুই নবজাতক মেয়েকে হত্যা করে কবর দেয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বুধবার (১০ জুলাই) এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় পুলিশ। খবর এনডিটিভির।

গ্রেপ্তার নীরজ সোলাঙ্কি (৩২) ছেলে সন্তান চেয়েছিলেন। তবে গত ৩০ মে মাসে তার স্ত্রী পূজা সোলাঙ্কি হরিয়ানার রোহতকের একটি হাসপাতালে যমজ মেয়ে সন্তানের জন্ম দেন। অভিযোগ রয়েছে, যমজ কন্যা শিশুর জন্ম হওয়ায় নীরজ বিরক্ত ছিলেন। গত ৩ জুন তাদের খুন করার পর থেকে তিনি পলাতক। পরে তাকে হরিয়ানা থেকে গ্রেপ্তার করে ভারতীয় পুলিশ।

আরো পড়ুন  এবারের হজেই পরীক্ষামূলকভাবে উড়ন্ত ট্যাক্সি চালাবে সৌদি আরব

এক বিবৃবিতে পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত নীরজ নিয়মিত তার অবস্থান পরিবর্তন করে দিল্লি ও হরিয়ানায় গ্রেপ্তার এড়িয়ে আসছিলেন। তবে তার স্ত্রীর নালিশের পর তাকে গ্রেপ্তার করে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে। তিনি নিজেও হত্যার বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

পুলিশ বলছে, গত ৩ জুন দুই শিশুর খুনের বিষয়ে দিল্লির সুলতানপুরি থানায় একটি কল আসে। ওই ফোনকারী ব্যক্তি জানান, তার ভগ্নিপতি নিজের তিনদিন বয়সী যমজ মেয়েকে হত্যা করে কবর দিয়েছে। তারপরই এই ঘটনা নিয়ে তদন্ত শুরু করেন পুলিশ সদস্যরা।

আরো পড়ুন  রাখঢাক ছাড়াই আফগানিস্তানে হামলা চালানোর হুমকি পাকিস্তানের

তারা বলছে, তদন্তের একপর্যায়ে যে কবরে শিশুদের দাফন করা হয়েছে সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়। একই সঙ্গে মরদেহ উত্তোলনের জন্য সংশ্লিষ্ট সাব ডিভিশনাল ম্যাজিস্ট্রেটের কাছ থেকে অনুমতি নেয়া হয়। পরে ৫ জুন লাশ দুটি উত্তোলন করে মঙ্গোলপুরীর একটি মর্গে সংরক্ষণ করা হয় এবং পরের দিন ৬ জুন ময়নাতদন্ত শেষে মামার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

আরো পড়ুন  যাত্রীদের ‘নষ্ট’ খাবার পরিবেশন, বিমানের জরুরি অবতরণ
সর্বশেষ সংবাদ