29 C
Dhaka
Thursday, June 20, 2024

মসজিদের স্টোর রুম থেকে নারীসহ দুই মুয়াজ্জিন আটক, অতঃপর…

মসজিদের স্টোর রুম থেকে আপত্তিকর অবস্থায় এক নারীসহ দুই মুয়াজ্জিনকে আটক করেছে এলাকাবাসী। পরে তাদের গণধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। মঙ্গলবার (২৮ মে) দিবাগত রাত সাড়ে দশটার দিকে পাবনার চাটমোহরে উপজেলার মূলগ্রাম ইউনিয়নের বেজপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত দুই মুয়াজ্জিন হলেন- বেজপাড়া জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন ও উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের চিরইল গ্রামের শাহ আলমের ছেলে হাফেজ ফরহাদ হোসেন এবং তার সহযোগী একই ইউনিয়নের জগতলা গ্রামের দিলবার হোসেনের ছেলে মাওলানা মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম।

আরো পড়ুন  সিলেটে মেয়রের সঙ্গে রাস্তা পরিষ্কারে নামলেন তামিম ইকবাল

এ ঘটনায় বুধবার (২৯ মে) সকালে বেজপাড়া জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি মোশারফ হোসেন বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

অভিযুক্ত দুই মুয়াজ্জিন এবং স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, প্রায় এক বছর ধরে হাফেজ ফরহাদ হোসেন বেজপাড়া জামে মসজিদে মুয়াজ্জিন হিসেবে কর্মরত আছেন। মঙ্গলবার রাত নয়টার দিকে পৌর শহরের জারদিস মোড় এলাকা থেকে উপজেলার ধরইল এলাকার জনৈক এক নারীকে দুই হাজার টাকার বিনিময়ে ভাড়া করে ফরহাদ হোসেন এবং নজরুল ইসলাম ভ্যানযোগে বেজপাড়া এলাকায় নিয়ে যান। পরে রাত বাড়লে দু’জন ওই নারীকে নিয়ে মসজিদের ভেতরের স্টোর রুমে প্রবেশ করেন। এরপর স্থানীয়রা তাদের আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলে এবং বাইরে থেকে মসজিদের গেটে তালা দেয়।

আরো পড়ুন  রাজ‌মি‌স্ত্রির কাজ করে ছেলেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াচ্ছেন মমেজা বেগম

খবর পেয়ে মসজিদ কমিটির লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত দুই মুয়াজ্জিন এবং ওই নারীকে বাইরে বের করে আনেন। এরপর এলাকাবাসী উত্তেজিত হয়ে গণধোলাই দেয়া শুরু করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। অভিযুক্ত দুই মুয়াজ্জিন এবং ওই নারীকে পুলিশের হাতে তুলে দেয় স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে বেজপাড়া জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি মোশারফ হোসেন বলেন, বিষয়টি ন্যাক্কারজনক। তারা দুইজনেই বিবাহিত। এমন ঘটনা মেনে নেয়া যায় না। এদের কঠোর শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

আরো পড়ুন  নারী কাউন্সিলরকে মারধর করায় পুরুষ কাউন্সিলর বরখাস্ত

চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম রেজা বলেন, এমন ঘটনা আমি আমার চাকরি জীবনে কখনো পাইনি। এর চেয়ে ঘৃণিত কাজ আর হতে পারে না। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়েরের পর গ্রেপ্তার দেখিয়ে বুধবার দুপুরে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ